কমিটি বিলুপ্তির কয়েক ঘণ্টার মধ্যে হেফাজতের আহ্বায়ক কমিটি

কমিটি বিলুপ্তির কয়েক ঘণ্টার মধ্যে হেফাজতের আহ্বায়ক কমিটি

রয়েল ভিউ ডেস্ক :
কমিটি বিলুপ্তির সাড়ে তিন ঘণ্টার মধ্যে হেফাজতে ইসলাম বাংলাদেশের পাঁচ সদস্যের নতুন আহ্বায়ক কমিটি গঠন করেছে।
হেফাজতে ইসলামের সদ্যসাবেক আমির জুনায়েদ বাবুনগরীকে আহ্বায়ক করে রবিবার দিবাগত রাত আড়াইটার দিকে এ কমিটি ঘোষণা করা হয়।
আহ্বায়ক কমিটির অন্য চারজন হলেন- মহিবুল্লাহ বাবুনগরী, নুরুল ইসলাম জিহাদী, সালাউদ্দিন নানুপুরী ও মিজানুর রহমান চৌধুরী।
প্রথমে তিন সদস্যের নতুন আহ্বায়ক কমিটি ঘোষণা করা হয় রবিবার দিবাগত রাত আড়াইটার দিকে। পরে ভোর ৪টার দিকে সালাউদ্দিন নানুপুরী ও মিজানুর রহমান চৌধুরীকে এই কমিটির সদস্য করা হয়েছে বলে জানানো হয়।
মহিবুল্লাহ বাবুনগরী আগের কমিটির প্রধান উপদেষ্টা আর নুরুল ইসলাম মহাসচিব ছিলেন।
এর আগে রবিবার রাত ১১টার দিকে এক ভিডিও বার্তায় দেশের বর্তমান পরিস্থিতির কারণে হেফাজতে ইসলামের কমিটি বিলুপ্ত ঘোষণা করেন জুনায়েদ বাবুনগরী।
কমিটি বিলুপ্তির ঘোষণা আসার পর সরকার ঘনিষ্ঠ হিসেবে পরিচিত মাওলানা মঈনুদ্দিন রুহী রাত সাড়ে ১২টার দিকে এক ভিডিও বার্তায় জুনায়েদ বাবুনগরীর গঠিত কমিটিকে অবৈধ বলে আখ্যায়িত করেন।
একই সঙ্গে সাবেক আমির আহমাদ শফীর অনুসারীরা ওই কমিটি মানেন না জানিয়ে তিনি সঠিক আদর্শের নেতৃবৃন্দের সঙ্গে নিয়ে হেফাজতের শিগগিরই নতুন কমিটি করার ঘোষণা দেন।
রুহীর বার্তা অবহিত হওয়ার পরপরই বাবুনগরীর বিলুপ্ত কমিটির নেতৃবৃন্দ রাতে বৈঠক করে নতুন আহ্বায়ক কমিটি ঘোষণা করেন।
গত বছরের ১৫ নভেম্বর জুনায়েদ বাবুনগরীকে আমির করে ১৫১ সদস্য বিশিষ্ট হেফাজতের কমিটি ঘোষণা করা হয়। সেখানে হেফাজতের প্রতিষ্ঠাতা আমির আহমদ শফীর ছেলে সরকার ঘনিষ্ঠ হিসেবে পরিচিত আনাস মাদানীর অনুসারী কাউকে রাখা হয়নি। এরপর থেকে তারা এই কমিটিকে অবৈধ ঘোষণা করে নতুন কমিটি গঠনের ঘোষণা দিয়ে আসছেন।
গত মাসে ভারতের প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদির বাংলাদেশ সফরের বিরোধিতা করে বিক্ষোভ-সংঘর্ষের ঘটনায় দেশের বিভিন্ন জেলায় হেফাজতের নেতা-কর্মীদের বিরুদ্ধে কমপক্ষে ৭৯টি মামলা হয়েছে। এসব মামলায় ৬৯ হাজারের বেশি জনকে আসামি করা হয়েছে। রবিবার পর্যন্ত সংগঠনটির কেন্দ্রীয় ও গুরুত্বপূর্ণ ১৯ জন নেতাকে গ্রেপ্তার করা হয়েছে।