তারেক রহমান ও বিএনপির ভবিষ্যৎ নিয়ে প্রশ্ন প্রধানমন্ত্রীর

তারেক রহমান ও বিএনপির ভবিষ্যৎ নিয়ে প্রশ্ন প্রধানমন্ত্রীর

রয়েল ভিউ ডেস্ক :
প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা বলেন, বিএনপির শীর্ষ নেতৃত্বের কোনো দেশপ্রেম নেই, জাতির জন্য কোনো কল্যাণকর চিন্তা নেই। বরং তারা ক্ষমতাকে ভোগের হাতিয়ার এবং লুটপাটের জায়গা মনে করে।  এছাড়াও দলের শীর্ষ নেতৃত্ব বেআইনি কার্যকলাপে জড়িত থাকার জন্য দোষী সাব্যস্ত হওয়ায় রাজনৈতিক দল হিসেবে বিএনপির ভবিষ্যত অস্তিত্ব নিয়ে প্রশ্ন তুলেছেন প্রধানমন্ত্রী।

রবিবার যুক্তরাজ্য প্রবাসী বাংলাদেশিদের আয়োজিত নাগরিক সংবর্ধনায় ভিডিও কনফারেন্সের মাধ্যমে যুক্ত হন তিনি।

এসময় প্রধানমন্ত্রী বলেন, বিএনপির নেতৃত্বেই রয়েছে অস্ত্র এবং দুর্নীতির মামলার সাজাপ্রাপ্ত আসামি। সাজাপ্রাপ্ত আসামির নেতৃত্বে একটি রাজনৈতিক দল টিকে থাকবে কীভাবে? খালেদা জিয়ার ছেলেদের দুর্নীতি কিন্তু আমেরিকার এফবিআই খুঁজে বের করেছে।

লন্ডনে তারেক রহমানের বিলাসবহুল জীবন এবং আয়ের উৎস নিয়েও প্রশ্ন তোলেন প্রধানমন্ত্রী। তিনি বলেন, বিএনপি জনগণের সম্পদ লুট করে বিলাসিতা করে। বিএনপির পাচারের টাকার কিছু অংশ দেশে ফিরিয়ে আনতে পেরেছে আওয়ামী লীগ সরকার।

অনুষ্ঠানে প্রবাসীদের দেশে বিনিয়োগের আহ্বান জানান সরকারপ্রধান। প্রবাসীদের কল্যাণে সরকারের নেওয়া বিভিন্ন পদক্ষেপের কথাও তুলে ধরেন প্রধানমন্ত্রী।

এর আগে, স্কটল্যান্ডের জলবায়ু সম্মেলন শেষে ৪ঠা নভেম্বর যুক্তরাজ্যে পৌঁছান প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা। এরপর ইউনেসকোর সাধারণ সম্মেলনে অংশ নিতে ৯ নভেম্বর লন্ডন থেকে প্যারিসের উদ্দেশে রওনা হবেন সরকারপ্রধান। সম্মেলনে অংশ নেয়ার পাশাপাশি ফ্রান্সের প্রেসিডেন্ট ও প্রধানমন্ত্রীর সঙ্গে দ্বিপক্ষীয় বৈঠকও করবেন তিনি। এ ছাড়া বেশ কিছু ফরাসি প্রতিষ্ঠানের প্রধানসহ এমইডিএইএফ-এর প্রতিনিধিদল প্রধানমন্ত্রীর সঙ্গে সাক্ষাৎ করবেন। সবশেষ ১৩ নভেম্বর দুই সপ্তাহের সফর শেষ করে প্যারিস থেকে ঢাকার উদ্দেশে রওনা হবেন শেখ হাসিনা। ১৪ নভেম্বর সকাল ১০টায় তার দেশে ফেরার কথা রয়েছে। সেদিন বিকেলে জাতীয় সংসদ অধিবেশনেও অংশ নেবেন প্রধানমন্ত্রী।