মহানগর আওয়ামী লীগ নেতৃবৃন্দের টুঙ্গিপাড়ায় জাতির পিতার মাজার জিয়ারত ও পুষ্পস্তবক অর্পণ

মহানগর আওয়ামী লীগ নেতৃবৃন্দের টুঙ্গিপাড়ায় জাতির পিতার মাজার জিয়ারত ও পুষ্পস্তবক অর্পণ

রয়েল ভিউ ডেস্ক :
টুঙ্গিপাড়ায় জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের মাজার জিয়ারত ও পুষ্পস্তবক অর্পণ করেন সিলেট মহানগর আওয়ামী লীগের নেতৃবৃন্দ । গত ৮ জানুয়ারি ২০২১ং তারিখে মহানগর আওয়ামী লীগের পূর্ণাঙ্গ কমিটি ঘোষিত হওয়ার পরে এটাই মহানগর আওয়ামী লীগের টুঙ্গিপাড়ায় প্রথম সফর। মহানগর আওয়ামী লীগের নেতৃবৃন্দের সাথে এই সফরে টুঙ্গিপাড়ায় যান পররাষ্ট্রমন্ত্রী ড.এ.কে আব্দুল মোমেন এমপি।

শনিবার (২০ নভেম্বর) সকালে মহানগর আওয়ামী লীগের নেতৃবৃন্দের সাথে জাতির পিতার মাজার জিয়ারত ও পুষ্পস্তবক অর্পণ করেন পররাষ্ট্রমন্ত্রী ড.এ.কে আব্দুল মোমেন এমপি।

মাজার জিয়ারত ও পুষ্পস্তবক অর্পণ শেষে পররাষ্ট্রমন্ত্রী ড.এ.কে আব্দুল মোমেন এমপি বলেন, জাতির পিতার মাজার জিয়ারত ও পুষ্পস্তবক অর্পণ করে আমরা খুবই আনন্দিত। আমি এর পূর্বেও এখানে অনেকবার এসেছি। আজ মহানগর আওয়ামী লীগের নেতৃবৃন্দের সাথে এসে ভালো লাগছে।আমিও মহানগর আওয়ামী লীগের একজন সদস্য। জাতির পিতাকে সমগ্র বাঙালি চিরদিন স্মরণ রাখবে।

তিনি সীমান্ত হত্যা নিয়েও কথা বলেন। পররাষ্ট্রমন্ত্রী বলেন সীমান্ত হত্যা খুবই দুঃখ ও লজ্জা জনক। ভারতের সাথে আমরা আলোচনা করেছি।পশ্চিমবঙ্গের জনগণও এই হত্যাকান্ডের বিপক্ষে। ভারত সরকারকে বলেছি সীমান্ত হত্যা বন্ধে ব্যবস্থা গ্রহণ করতে। রোহিঙ্গা প্রত্যাবর্তনের বিষয়ে গুরুত্বপূর্ণ তথ্য দেন। জাতিসংঘ সহ বিভিন্ন দেশ সম্মতি দিয়েছেন যে খুব দ্রুত রোহিঙ্গা প্রত্যাবর্তন দরকার। তিনি বলেন, মায়ানমার সরকার এ বিষয়ে গুরুত্ব দিবেন। আমরা ইতিমধ্যে ১৮ হাজার রোহিঙ্গাকে ভাসানচরে স্থানান্তর করেছি। এ মাস থেকে আবারো শুরু হবে। পর্যায়েক্রমে ১ লক্ষ রোহিঙ্গাকে স্থানান্তর করা হবে। সকল ধরনের সুযোগ-সুবিধা সেখানে রয়েছে।

সিলেট মহানগর আওয়ামী লীগের সভাপতি বীর মুক্তিযোদ্ধা মাসুক উদ্দিন আহমদ ও সাধারণনম সম্পাদক অধ্যাপক মোঃ জাকির হোসেন এর নেতৃত্বে মাজার জিয়ারত ও পুষ্পস্তবক অর্পণকালে উপস্থিত ছিলেন মহানগর আওয়ামী লীগের সহ-সভাপতি আসাদ উদ্দিন আহমদ, এডভোকেট প্রদীপ কুমার ভট্টাচার্য্য, মোঃ সানাওর, জগদীশ চন্দ্র দাস, যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক আজাদুর রহমান আজাদ, বিধান কুমার সাহা, আইন বিষয়ক সম্পাদক এডভোকেট বেলাল উদ্দিন, কৃষি ও সমবায় বিষয়ক সম্পাদক তপন মিত্র, তথ্য ও গবেষণা সম্পাদক এডভোকেট গোলাম সোবহান চৌধুরী দীপন, এাণ ও সমাজ কল্যাণ বিষয়ক সম্পাদক মখলিছুর রহমান কামরান, দপ্তর সম্পাদক খন্দকার মহসিন কামরান, প্রচার ও প্রকাশনা সম্পাদক আব্দুর রহমান জামিল, বন ও পরিবেশ বিষয়ক সম্পাদক আজাহার উদ্দিন জাহাঙ্গীর, বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিষয়ক সম্পাদক মহিউদ্দিন লোকমান, মহিলা বিষয়ক সম্পাদক আসমা বেগম, মুক্তিযুদ্ধ বিষয়ক সম্পাদক মোহাম্মদ জুবের খান , যুব ও ক্রিয়া বিষয়ক সম্পাদক সেলিম আহমদ সেলিম, শিক্ষা ও মানবসম্পদ বিষয়ক সম্পাদক ইলিয়াছুর রহমান ইলিয়াছ, শ্রম সম্পাদক আজিজুল হক মঞ্জু, সাংস্কৃতিক সম্পাদক রজত কান্তি গুপ্ত, স্বাস্থ্য ও জনসংখ্যা বিষয়ক সম্পাদক ডাঃ মোহাম্মদ হোসেন রবিন, সাংগঠনিক সম্পাদক এডভোকেট সৈয়দ শামীম আহমদ ,ডাঃ আরমান আহমদ শিপলু, উপ-দপ্তর সম্পাদক অমিতাভ চক্রবর্ত্তী রনি , সহ-প্রচার সম্পাদক সোয়েব আহমদ।

মহানগর আওয়ামী লীগের সদস্যবৃন্দ আজম খান, আব্দুল আহাদ চৌধুরী মিরন, মোঃ আব্দুল আজিম জুনেল, নুরুন নেছা হেনা, এডভোকেট মোহাম্মদ জাহিদ সারোয়ার সবুজ, এমরুল হাসান, সুদীপ দেব, সাব্বির খান, সৈয়দ কামাল, সাইফুল আলম স্বপন, রোকসানা পারভীন, ওয়াহিদুর রহমান ওয়াহিদ, তৌফিক বক্স লিপন, আবুল মহসিন চৌধুরী মাসুদ, মহসিন চৌধুরী, ইঞ্জিনিয়ার আতিকুর রহমান সুহেদ, শিপা বেগম শুপা, জুমাদিন আহমেদ, রকিবুল ইসলাম ঝলক, ইলিয়াছ আহমেদ জুয়েল ।