সিলেটে শুরু হলো চিত্রপ্রদর্শনী ‘ক্যানভাসে বঙ্গবন্ধু’

সিলেটে শুরু হলো চিত্রপ্রদর্শনী ‘ক্যানভাসে বঙ্গবন্ধু’

জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের শাহাদাতবার্ষিকী উপলক্ষ্যে সিলেটে ‘ক্যানভাসে বঙ্গবন্ধু’ শীর্ষক চিত্রপ্রদর্শনী শুরু হয়েছে। শাহ আলম গ্যালারি অব ফাইন আর্টস আয়োজিত সাতদিন ব্যাপী এ চিত্র প্রদর্শনী শনিবার (১৫ আগস্ট) সন্ধ্যায় উদ্বোধন করা হয়।

করোনাভাইরাস সংক্রমণের কারণে অনলাইনে এই চিত্র প্রদর্শনীর আয়োজন করা হয়। অনলাইনের মাধ্যমে আয়োজিত উদ্বোধনী অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথি ছিলেন সিলেটের জেলা প্রশাসক এম. কাজী এমদাদুল ইসলাম।

রয়েল ভিউ ডেস্ক :  শাহ আলম গ্যালারি অব ফাইন আর্টসের ফাউন্ডিং পেট্রোন হ্যারল্ড রশীদের সভাপতিত্বে উদ্বোধনী অনুষ্ঠানে বিশেষ অতিথির বক্তব্য রাখেন- বিশিষ্ট চিত্রশিল্পী তরুণ ঘোষ ও ঢাকা আর্ট কলেজের অধ্যক্ষ চিত্রশিল্পী গোবিন্দ রায়।

দেবাশীষ দেবু’র সঞ্চালনায় উদ্বোধনী অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথির বক্তব্যে জেলা প্রশাসক এম. কাজী এমদাদুল ইসলাম বলেন, বঙ্গবন্ধুর কারণে বাংলাদেশ স্বাধীনতা পেয়েছে। আমরা পেয়েছি একটি নিজস্ব মানচিত্র, নিজস্ব ভূখন্ড। কিন্তু আজকের দিনে কিছু বিপথগামী বাঙালির জাতির পিতাকে সপরিবারের হত্যা করেছিলো। যা বাঙালির জাতির জীবনে একটি কালো অধ্যায়।

তিনি বলেন, তরুণ প্রজন্মের অনেকেই বঙ্গবন্ধু আদর্শ-সংগ্রাম, পাকিস্তানি শোষকদের বিরুদ্ধে লড়াই সম্পর্কে জানে না। কারণ বঙ্গবন্ধুকে হত্যার পর খুনিচক্র ইতিহাস ভিন্নখাতে প্রবাহিত করে। মানুষকে সত্য ইতিহাস জানা থেকে বঞ্চিত করে। ফলে আমাদের এখন মানুষকে সঠিক ইতিহাস জানানোর দায়িত্ব নিতে হবে।

তিনি বলেন, ইতিহাসের সত্য জানানোর নানা মাধ্যম রয়েছে। চিত্রকলা তার অন্যতম। আজকের এই প্রদর্শনী ইতিহাসের সত্য জানানোরই একটি উদ্যোগ। এজন্য আমি এই উদ্যোগ যারা নিয়েছেন তাদের অভিনন্দন জানাচ্ছি। এসময় অতিথিদের দাবির প্রেক্ষিতে জেলা প্রশাসক সিলেটে আর্ট কলেজ স্থাপনের উদ্যোগ গ্রহণের আশ্বাস দেন।

শাহ আলম গ্যালারি অব ফাইন আর্টসের প্রধান নির্বাহী ইসমাইল গণি হিমন জানান, বঙ্গবন্ধুর জন্মশতবার্ষিকী উপলক্ষ্যে ‘শত ক্যানভাসে বঙ্গবন্ধু’ শিরোনামে আমরা তিনটি আর্ট ক্যাম্পের আয়োজন করি। জন্মশতবার্ষিকীতে আমরা আরও নানা আয়োজনের উদ্যোগ নিয়েছিলাম। কিন্তু করোনাভাইরাসের কারণে তা সম্ভব হয়নি। এই আর্ট ক্যাম্প থেকে পাওয়া এবং আরও কয়েকজন শিল্পীর কাছ থেকে সংগৃহিত বঙ্গবন্ধু বিষয়ক ছবি নিয়ে এই প্রদর্শনীর আয়োজন করি।

তিনি জানান, প্রদর্শনী ২১ আগস্ট পর্যন্ত চলবে। www.shahalam.saas-bd.org গিয়ে যে কেউ এই প্রদর্শনীর ছবি দেখতে পারবেন।