সিয়েরা লিওনের ফ্রিটাউনে তেলের ট্যাংকার বিস্ফোরণে নিহত ৯১

সিয়েরা লিওনের ফ্রিটাউনে তেলের ট্যাংকার বিস্ফোরণে নিহত ৯১

ডেস্ক রিপোর্ট:

পশ্চিম আফ্রিকার দেশ সিয়েরা লিওনের রাজধানী ফ্রিটাউনে ভয়াবহ বিস্ফোরণে অন্তত ৯১ জনের প্রাণহানি ঘটেছে। এছাড়া বিস্ফোরণে আহত হয়েছেন আরো কয়েক ডজন; যাদের অনেকের অবস্থা আশঙ্কাজনক। শুক্রবার ফ্রিটাউনের কাছের ওয়েলিংটনের ব্যস্ত চোইথরাম সুপার মার্কেটের পাশের একটি মোড়ে বিস্ফোরণের এই ঘটনা ঘটেছে।

বিবিসি বলছে, শুক্রবার ফ্রিটাউনের এক ব্যস্ত জংশনে ৪০ ফুট দীর্ঘ তেলবাহী একটি ট্যাংকারের সাথে অন্য একটি বাহনের সংঘর্ষ হয়। এতে মুহূর্তের মধ্যে সেখানে বিকট বিস্ফোরণের পর আগুন ধরে যায়।

সামাজিক যোগাযোগমাধ্যমে ছড়িয়ে পড়া ভিডিওতে দেখা যায়, বিস্ফোরিত ট্যাংকারের চারপাশে আগুনে পোড়া মরদেহ ছড়িয়ে ছিটিয়ে আছে। ফ্রিটাউনের মেয়র ইভন আকি-সায়ার এই ঘটনাকে ‘দুঃখজনক’ বলে মন্তব্য করলেও বিস্ফোরণে হতাহত কিংবা ক্ষয়ক্ষতির পরিমাণ এখনও পরিষ্কার নয় বলে জানিয়েছেন।

ফেসবুকে দেওয়া এক পোস্টে তিনি বলেছেন, শতাধিক মানুষের প্রাণহানি ঘটেছে বলে গুজব ছড়িয়েছে। যদিও এখন পর্যন্ত মৃতের সঠিক সংখ্যা জানা যায়নি। তবে হতাহতদের পরিবারের সদস্যদের প্রতি শোক ও সমবেদনা প্রকাশ করেছেন তিনি।

দেশটির রাষ্ট্রায়ত্ত মর্গের ব্যবস্থাপক রয়টার্সকে বলেছেন, তারা এখন পর্যন্ত ৯১ জনের মরদেহ পেয়েছেন। সিয়েরা লিওনের জাতীয় দুর্যোগ ব্যবস্থাপনা সংস্থার প্রধান ব্রিমা বুরেহ সিসে স্থানীয় সংবাদমাধ্যমকে বলেছেন, ঘটনাটি অত্যন্ত ভয়াবহ, ভয়াবহ দুর্ঘটনা।

বিবিসি বলছে, মাত্র ১০ লাখের কিছু বেশি মানুষের এই শহরটি সাম্প্রতিক বছরগুলোতে বেশ কয়েকটি মারাত্মক বিপর্যয়ের মুখোমুখি হয়েছে। গত মার্চে ফ্রিটাউনের একটি বস্তিতে বড় ধরনের অগ্নিকাণ্ডের ঘটনা ঘটে। এতে অন্তত ৮০ জনের বেশি মানুষের প্রাণহানি এবং ৫ হাজারের বেশি মানুষ গৃহহীন হয়ে পড়েন।

দেশটির প্রেসিডেন্ট জুলিয়াস মাদা বায়ো এক টুইট বার্তায় বলেছেন, ‘যারা প্রিয়জনকে হারিয়েছেন এবং যারা পঙ্গুত্ব বরণ করেছেন; তাদের প্রতি আমার গভীর সহানুভূতি। আমার সরকার ক্ষতিগ্রস্ত পরিবারকে সহায়তা করার জন্য সবকিছু করবে।’ সূত্র: বিবিসি